শস্য বীমা যোজনা 2021 কিভাবে আবেদন করবেন

Contents hide

    বাংলার শস্য বীমা যোজনা 2021 কিভাবে অনলাইন আবেদন করবেন …

কৃষককে ফসল বীমা কভারেজ দেওয়ার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার আবারও বাংলা শস্য বিমা যোজনা নামে পরিচিত নতুন প্রকল্প নিয়ে এসেছে। এই প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের যদি তাদের ফসলের কোনও ক্ষতি হয় তবে তাদের কভারেজ সরবরাহ করা হবে। তাই আজ আমাদের নিবন্ধের মাধ্যমে আমরা আপনাদের সাথে ডব্লিউবি বাংলার ফসল বীমা যোজনা 2021 সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য যেমন স্কিমের উদ্দেশ্য, যোগ্যতার মানদণ্ড, এবং প্রয়োজনীয় নথিগুলি শেয়ার করব। এছাড়াও, আমরা এই প্রকল্পের আওতায় আবেদনের জন্য সমস্ত আবেদন পদ্ধতি আপনার সাথে ভাগ করব।

পশ্চিমবঙ্গ শস্য বিমা প্রকল্পের হাইলাইটস

Name of the scheme পশ্চিমবঙ্গ শস্য বিমা যোজনা
Launched by পশ্চিমবঙ্গ সরকার
Launched for রাজ্যের কৃষকরা
Objective কৃষকদের ফসলের বীমা সরবরাহ করা
Benefit প্রিমিয়ামের পরিমাণ সরকার বহন করবে
Insurance Amount প্রতি হেক্টর ভিত্তিতে গণনা করা হবে
Official Website www.banglashashyabima.net

শস্য বীমা যোজনা

শস্য বীমা যোজনা কেন করা হয় ?

বাংলার কৃষকদের ফসল নষ্ট হয়ে গেলে তাদের আর্থিক সমস্যা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার ‘বাংলা শস্য বীমা যোজনা’ নামে একটা প্রকল্প প্রচলন করেছে। এই প্রকল্পের আওতায় সরকার কৃষকদের ফসলের প্রিমিয়াম প্রদান করবে। কোন প্রাকৃতিক বিপর্যয় এবং অন্যান্য কারণে কৃষকের ফসল নষ্ট হয়ে গেলে তার ক্ষতিপূরণের উদ্দেশ্যে এই বীমার প্রচলন করেছে সরকার। তাই সকল কৃষকদের এই বীমা গ্রহণ করা জরুরী বলে মনে করতে পারেন। এই রাজ্য সরকার ও বীমা সংস্থাগুলির মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী, সকল বীমা সংস্থা প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েত ও ব্লকে সচেতনতা মূলক শিবিরের  আয়োজন করেন।

স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নাম চেক অনলাইন

বাংলা শস্য বিমা যোজনার উদ্দেশ্য:

যেমনটি আমরা সবাই জানি আমাদের কৃষকদের জমিতে ফসলের আবাদ করার সময় বা প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে বড় ক্ষতির মুখোমুখি হতে হয়।  এবং এটি তাদের উপর প্রচুর আর্থিক বোঝা তৈরি করে।  এই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে পশ্চিমবঙ্গ সরকার ডব্লিউবি বাংলা শস্য বিমা যোজনা নামে একটি নতুন প্রকল্প নিয়ে এসেছে।  এই প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের বিশেষ করে চলতি মরসুমের ফসলের জন্য শস্য বীমা কভারেজ সরবরাহ করা হবে যাতে তাদের আর্থিক সঙ্কট সহ্য করতে না হয়।  রাজ্যের কৃষকদের উপর ভার কমাতে এই বিমার জন্য প্রিমিয়ামের পরিমাণ সরকার প্রদান করবে।

পশ্চিমবঙ্গে ২০১৯-২০ বর্ষ থেকে বাংলা শস্য বীমা যোজনায় যে নতুন বিষয়গুলির সংযোজন ঘটেছে : 

  • কেসিসি (Kisan Credit Card) থাকলে লোন এবং শস্য বীমা দুটির জন্য আবেদন করতে সহজ হবে। তবে নতুন নির্দেশিকা অনুসারে কেসিসি না থাকলেও এই বীমা আবেদন করা যাবে।
  • ২০১৯-২০ সালে বাঁকুড়া জেলার রবি মরসুমে বোরো ধান, গম, মুসুর, সরিষা, তিল, চীনাবাদাম এবং আলু- এই শস্যগুলি বীমার আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
  • রবি মরসুমে বোরো ধান, গম, মুসুর, সরিষা, তিল, চীনাবাদাম- এই শস্যগুলি বীমার প্রিমিয়ামের সম্পূর্ণ অর্থ পশ্চিমবঙ্গ সরকার পরিবহন করছে বা করে থাকে।
  •  শুধুমাত্র আলু এবং আখ এই দুটি বাণিজ্যিক ফসলের জন্য কৃষককে সর্বাধিক ৪.৯৫% প্রিমিয়াম জমা দিতে হবে। অবশিষ্ট প্রিমিয়াম রাজ্য সরকার বহন করবে।

বাংলার শস্য বীমা যোজনা

কৃষক বন্ধু প্রকল্প ফরম ফিলাপ ?

এই বীমা কারা আবেদনের যোগ্য : 

  • পশ্চিমবঙ্গের কৃষককে স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • জমির মালিক/ভাগচাষী সকলে বাংলা শস্য বিমা প্রকল্পের সুবিধা পেতে পারেন বলে ঘোষণা করেন রাজ্য সরকার।
  • এই স্কিম অনুসারে, আবেদনকারীরা ফসলের ক্ষতির সম্মুখীন হলে কেবল বীমা সুবিধে পাবেন বলে। 
  •  রাজ্য সরকারের এই প্রকল্পের সুবিধাভোগীকে কর্তৃপক্ষের কাছে ক্ষতির সঠিক প্রমাণ তথ্য এবং জমির দলিল ও রেকড তথ্য সহ্য প্রয়োজনীয় নথি জমা দিতে হবে।

রাজ্যে মধ্যে কোথায় কোথায় পাওয়া যাবে এই সুবিধা –

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যে সরকারি তথ্য অনুযায়ী, দার্জিলিং, কালিম্পং, মালদা, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব মেদিনীপুর, হুগলী, কোচবিহার, বীরভূম, পুরুলিয়া, দক্ষিণ দিনাজপুর, উত্তর ২৪ পরগনা এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা ইত্যাদি জেলা গুলিতে এই সুবিধা উপলব্ধ পাবে। 

আবেদন কি করে হবে?  –

  • অনলাইন আবেদন পদ্ধতি –

বাংলা শস্য বিমা যোজনার জন্য আবেদনের জন্য আপনাকে নীচে দেওয়া সহজ পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে হবে: –

বাংলা শস্য বীমা যোজনায়

  •  ওয়েবপৃষ্ঠায় উপস্থাপনের জন্য register নামক অপশনে ক্লিক করুন।
  •  আপনার স্ক্রিনে একটি নতুন পৃষ্ঠা প্রদর্শিত হবে।
  •  Registration ফর্মটি আপনার সামনে প্রদর্শিত হবে।

শস্য বীমা যোজনা 2021

  •  Registration ফর্ম ভালোভাবে পূরণ করুন।
  •  সমস্ত বিবরণ লিখুন।
  •  Sign up অপশনে ক্লিক করুন।
  •  এখন আপনাকে নিজের email and password ব্যবহার করে লগ ইন করতে হবে।

 

  • অফলাইন আবেদন পদ্ধতি – অফলাইনে আবেদনের জন্য এই ফর্ম কৃষকরা নিকটবর্তী গ্রাম পঞ্চায়েত, কিষাণ মান্ডি বা ব্লক অফিস থেকে সংগ্রহ করতে পারেন বা পারবেন।

বিস্তারিত তথ্যের জনের জন্য, (ADA) অ্যাসিস্টেন্ট ডিরেক্টর অফ এগ্রিকালচার অফিসে যোগাযোগ করতে পারেন বা টোল ফ্রি নাম্বারে ১৮০০-১০৩-১১০০ কল করতে পারেন।

বাংলা শস্য বিমা যোজনার বীমা গণনা:

আপনি যদি নিজের বীমা প্রিমিয়াম জানতে চান তবে আপনাকে নীচের দেওয়া সহজ পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে হবে: –

  • প্রথমে স্কিমটির অফিসিয়াল ওয়েবপৃষ্ঠায় যেতে এখানে প্রদত্ত লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন।
  •  হোমপেজটি আপনার স্ক্রিনে প্রদর্শিত হবে
  •  এখন Report Crop Loss নামে অপশনে ক্লিক করুন।
  • একটি নতুন পৃষ্ঠা আপনার স্ক্রিনে প্রদর্শিত হবে।
  •  আপনি বীমা সংস্থাগুলি সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য এবং তাদের টোল ফ্রি নম্বর দেখতে পাবেন।
  •  আপনি নির্ধারিত সংস্থার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।
  •  বন্ধ ক্লিক করুন।

বাংলা শস্য বিমা যোজনার অ্যাপ্লিকেশন স্থিতি :

  • বাংলা শস্য বিমার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট দেখুন।
  •  হোম পৃষ্ঠাটি আপনার সামনে উপস্থিত হবে।
  •  হোমপেজে Application Status অপশনে ক্লিক করুন।
  •  আপনার সামনে একটি নতুন ওয়েব পৃষ্ঠা প্রদর্শিত হবে।
  •  এখানে, আপনার অ্যাপ্লিকেশন আইডি লিখুন
  •  আইডি এন্টার করার পরে Search বিকল্পে ক্লিক করুন।

2021 বাংলা শস্য বিমা যোজনার আবেদন ফর্ম ডাউনলোড করার প্রক্রিয়া:

  • বাংলা শস্য বিমার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান|
  • হোম পৃষ্ঠাটি আপনার সামনে উপস্থিত হবে।
  • হোমপেজে, Application Form For Rabi 2021 বিকল্পে ক্লিক করুন
  • ফর্মটি আপনার ডিভাইসে ডাউনলোড করা হবে |
  • ফোনটি খুলুন এবং সাবধানে ফর্মটি পূরণ করুন |
  • সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ নথি সংযুক্ত করুন
  • এবং এটি কৃষি বিভাগে জমা দিন।