স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন

Contents hide
1 স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন 2021 | West Bengal Student Credit Card apply online

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন 2021 | West Bengal Student Credit Card apply online

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন | West Bengal Student Credit Card Application Form | WB Student Credit Card Scheme Eligibility | স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল |student credit card apply online

প্রায় প্রতিটি শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে চায় তবে আর্থিক আর্থিক অবস্থার কারণে এমন অনেক শিক্ষার্থী আছেন যারা উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন পূরণ করতে সক্ষম হন না।  সকল শিক্ষার্থীর মধ্যে উচ্চ শিক্ষার প্রাপ্যতা নিশ্চিত করতে সরকার বিভিন্ন ধরণের পরিকল্পনা চালু করে। 

আজ আমরা আপনাকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার যে পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিম নামে অভিহিত করেছে, এমন একটি প্রকল্পের কথা বলতে যাচ্ছি।  এই প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার জন্য লোন দেওয়া হবে।  এই নিবন্ধটি পড়ে আপনি এই স্কিম সম্পর্কিত সমস্ত প্রয়োজনীয় তথ্য দখল করবেন যেমন পশ্চিমবঙ্গের ছাত্র ক্রেডিট কার্ড কী? 

এর উদ্দেশ্য, সুবিধাগুলি, বৈশিষ্ট্য, যোগ্যতার মানদণ্ড, প্রয়োজনীয় নথি, আবেদনের পদ্ধতি ইত্যাদি  আপনি যদি এই স্কিম সম্পর্কিত সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে চান তবে আপনাকে এই নিবন্ধটি শেষ অবধি খুব সাবধানে পড়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল স্কিম 

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিম চালু করেছেন।  এই স্কিমটি চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল 2021 সালের 24 শে জুন রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে দশম বা তদূর্ধ্ব শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা উচ্চতর পড়াশুনার জন্য 10 লক্ষ টাকা পর্যন্ত  নিতে পারে। 

এই লোনের খুব সুদের হারে তাদের কাছে উপলব্ধ হবে।  এই লোনের সুবিধা গ্রহণের জন্য, শিক্ষার্থীদের একটি ক্রেডিট কার্ড সরবরাহ করা হবে।  এই ক্রেডিট কার্ডের সাহায্যে শিক্ষার্থীরা লোনের পরিমাণ প্রত্যাহার করতে পারে।  গত 10 বছর ধরে পশ্চিমবঙ্গে যে সমস্ত শিক্ষার্থী বসবাস করছেন তারা এই প্রকল্প থেকে সুবিধা নিতে পারবেন। 

এই প্রকল্পের আওতায় ভারত বা বিদেশে স্নাতক, স্নাতকোত্তর, ডক্টরাল এবং স্নাতকোত্তর পড়াশোনার জন্য লোন নেওয়া যেতে পারে।

পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিম চালু হয়েছে

2021 সালের 30 জুন পশ্চিমবঙ্গ সরকার পশ্চিমবঙ্গ ছাত্র ক্রেডিট কার্ড প্র কল্প চালু করেছে। শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার জন্য লোন দেওয়ার লক্ষ্যে এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে।  এই প্রকল্পের কর্মপরিকল্পনা ব্যাখ্যা করার জন্য কলেজগুলির সাথে বিভিন্ন সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 

উচ্চ শিক্ষা বিভাগ শীঘ্রই পশ্চিমবঙ্গ ছাত্র ক্রেডিট কার্ড প্রকল্প চালু করার একটি সরকারী আদেশ প্রকাশ করবে।  এই লোনের সর্বোচ্চ সীমা 10 লক্ষ টাকা ,। এই লোনটি ভারত এবং বিদেশে পড়াশোনা করার জন্য ব্যবহার করতে পারে।  এই স্কিমটি বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৈরি নির্বাচনী ইশতেহারের একটি অংশ ছিল।

Name Of The Scheme West Bengal Student Credit Card
Launched By Government Of West Bengal
Beneficiary Students Of West Bengal
Objective To Provide Loans For Higher Education
Official Website To Be Launched Phone or Click Here
Year 2021
Amount Of Loan Up to Rs 10 Lakh
Repayment Period 15 Years After Getting Job
State West Bengal
Application Type Online

পশ্চিমবঙ্গ ছাত্র ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের আওতায় সুদের হার 

যে সমস্ত শিক্ষার্থী দশম এবং তদূর্ধ্ব শ্রেণিতে অধ্যয়ন করছে তারা পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষার্থী ক্রেডিট কার্ড প্রকল্প থেকে সুবিধা নিতে পারে।  এই প্রকল্পের মাধ্যমে, শিক্ষার্থীরা 4% নামমাত্র সুদের সাথে ঝামেলা-মুক্ত এবং জামানত-মুক্ত লোন নিতে পারবেন।  এই লোন টি কোনও সুরক্ষা বা জামানত সুরক্ষা ছাড়াই মাতাপিতার সহ-দায়বদ্ধতা ব্যতীত একটি স্পষ্ট বা অদৃশ্য আকারে সরবরাহ করা হবে। 

এই লোনের পরিশোধের সময়কাল 15 বছর।  উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিভাগ বিভাগ শিক্ষার্থীদের আবেদন ব্যাংকে প্রেরণ করবে।  শিক্ষার্থীরা লোনের পরিমাণ প্রাতিষ্ঠানিক পাশাপাশি বেসরকারী ব্যয় যেমন ভাড়া, হোস্টেল ফি, স্টাডি ট্যুর, প্রকল্প ইত্যাদির জন্য ব্যবহার করতে পারে।

পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার্থী ক্রেডিট কার্ডের পরিশোধের সময়কাল

এই স্কিমটি তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী ইশতেহারের একটি অংশ ছিল।  শিক্ষার্থীরা 40 বছর বয়স পর্যন্ত এই স্কিমটি থেকে সুবিধা নিতে পারে।  একটি চাকরি পাওয়ার পরে শিক্ষার্থীদের 15 বছরের একটি সময়ের মধ্যে লোন পরিশোধ করতে হবে।  এটাও লক্ষণীয় যে ছাত্র দের জন্য আবেদনের পদ্ধতিটি সহজ করা হবে যাতে শিক্ষার্থীরা সহজে লোন নিতে পারে। 

শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্রেডিট কার্ডের জন্যও আবেদন করতে পারে।  পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিমটি আনুষ্ঠানিকভাবে 30 শে জুন 2021 সালে চালু করা হবে। এখন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার্থীরা তাদের আর্থিক অবস্থার পরেও উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে সক্ষম হবে।

পশ্চিমবঙ্গ ছাত্র ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের উদ্দেশ্য 

পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মূল লক্ষ্য হ’ল উচ্চ শিক্ষার জন্য শিক্ষার্থীদের লোন সরবরাহ করা।  এই প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের জন্য 10 লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়া হবে যা তাদের আর্থিক বোঝার কথা চিন্তা না করে উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণে সহায়তা করবে। 

এখন পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে সক্ষম হবে।  এই প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গের নাগরিকদের মধ্যে বেকারত্বের হারও হ্রাস করবে কারণ এখন আরও শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা এবং কর্মসংস্থান পেতে পারবে।

পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষার্থীদের ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা এবং বৈশিষ্ট্য 

  • পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিম চালু করেছেন।

 

  •  এই প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার জন্য 10 লক্ষ টাকা পর্যন্ত শিক্ষাগত লোন দেওয়া হবে।

 

  •  এই স্কিমটি চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে যা 24 শে জুন 2021 সালে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

 

  •  দশম বা তদূর্ধ্ব শ্রেণিতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা এই স্কিমটির সুবিধা নিতে সক্ষম হবে।

 

  •  এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রদত্ত লোন সুদের খুব স্বল্প হারে পাওয়া যাবে।

 

  •  লোনের সংখ্যা পাওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের একটি ক্রেডিট কার্ড সরবরাহ করা হবে।এই ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা লোনের পরিমাণ প্রত্যাহার করতে পারে ।

 

  •  গত 10 বছর ধরে পশ্চিমবঙ্গে যে সমস্ত শিক্ষার্থী বসবাস করছেন তারা এই প্রকল্পের সুবিধা নিতে পারবেন।

 

  •  পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ভারতে বা বিদেশে স্নাতক, স্নাতকোত্তর, ডক্টরাল এবং পোস্টডক্টোরাল পড়াশোনার জন্যও নেওয়া যেতে পারে।

 

  •  এই দৃশ্যটি ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী ইশতেহারের একটি অংশ।

 

  • পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করা যাবে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়স পর্যন্ত।

পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড স্কিমের জন্য আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র

  • ঠিকানার প্রমাণ।
  • পরিবারের আয়ের সার্টিফিকেট।
  • দ্বাদশ শ্রেণীর মার্ক শিট।
  •  উচ্চশিক্ষার রেজিস্ট্রেশনের জন্য প্রয়োজনীয় নথি, অথবা বিশেষ নির্বাচিত হওয়ার নথি।
  • ছাত্র-ছাত্রী ও তাঁদের মা ও বাবার পরিচয়পত্র (আধার কার্ড / প্যান কার্ড / পাসপোর্টের কপি)।
  • ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর।

পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড কীভাবে আবেদন করবেন?( How to West Bengal Student Credit Card apply)

 

পশ্চিমবঙ্গ স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ‘Student Registration’

  • যে নতুন পেজ খুলবে সেখানে আবেদনকারীর সমস্ত তথ্য পূরণ করতে হবে। যেমন- নিজের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর, ইমেইল আইডি এবং আধার কার্ড। আধার কার্ড না থাকলেও স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে আধার কার্ড থাকা বা না থাকার উপর ভিত্তি করে রেজিষ্ট্রেশন ফর্ম আলাদা হবে। উপরে উল্লেখিত তথ্যগুলো পূরণ করে ‘Register’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।

 

  •   রেজিস্টার করার পর আপনার মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি যাবে। ওই ওটিপি নির্দিষ্ট ঘরে টাইপ করে ভেরিফাই করতে হবে। উপরোক্ত চারটি পদ্ধতির দ্বারা আপনার রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর স্ক্রিনে একটি রেজিস্ট্রেশন আইডি আসবে এবং আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে লগইন করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য মেসেজ আকারে পেয়ে যাবেন।

 

  • পরবর্তী পদক্ষেপ হলো, আপনাকে  অফিশিয়াল  ওয়েবসাইটে গিয়ে ‘Student Login’ -অংশে ক্লিক করতে হবে। তারপরে নতুন পেজে আপনার রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে।

 

  • এবার স্ক্রিনে ‘Dashboard’ খুলে যাবে। সেখানে ‘Apply Now’ -অংশে ক্লিক করতে হবে।

West Bengal Student Credit Card apply

  • নতুন পৃষ্ঠায়, আপনাকে নিম্নলিখিত তথ্যগুলি পূরণ করতে হবে। যেমন আপনার নাম, আপনার বাবার নাম, আপনার মাতার নাম, অভিভাবকের নাম, মোবাইল নম্বর, জন্ম তারিখ, কাস্ট, আপনার প্যান কার্ড রয়েছে কিনা (হ্যাঁ বা না) শিক্ষাগত যোগ্যতা ), ঠিকানা, আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর সহ বিভিন্ন তথ্য। উপরের তথ্যটি পূরণ করুন এবং ‘সংরক্ষণ করুন এবং অবিরত বোতামে ক্লিক করুন। আবেদনকারীর আধার কার্ড রয়েছে কি না তার উপর নির্ভর করে নিবন্ধকরণ ফর্মটি আলাদা হবে। যদি আবেদনকারীর প্যান কার্ড না থাকে তবে তাকে ‘Download Undertaking Documents’  বিভাগে ক্লিক করে এটি ডাউনলোড করতে হবে। যা পূরণের পরে আপলোড করা যেতে পারে।

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন 2021

  • যাদের আধার কার্ড নেই তাদের ক্ষেত্রে – ফটোগ্রাফারের আবেদন, আবেদনকারীর স্বাক্ষর, পিতামাতার স্বাক্ষর, পিতামাতার ছবি, পিতামাতার ঠিকানা শংসাপত্র (ভোটার কার্ড), আবেদনকারীর প্রবেশের প্রাপ্তির ছবি, প্যান কার্ড, প্যারেন্টের প্যান কার্ড, আবেদনকারীর কোর্স ফি । যাদের আধার কার্ড রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে- আবেদনকারীর ছবি, আবেদকের স্বাক্ষর, অভিভাবকের স্বাক্ষর, অভিভাবকের ছবি, অভিভাবকের ঠিকানা শংসাপত্র (ভোটার কার্ড), আবেদনকারীর প্রবেশের প্রাপ্তির ছবি, প্যান কার্ড, অভিভাবকের প্যান কার্ড, আবেদনকারীর পাঠ্যক্রম সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য ফি অবশ্যই আপলোড করতে হবে। উপরের তথ্য আপলোড করার পরে, আপনাকে ‘Save & Continue’  বিকল্পটি ক্লিক করতে হবে।

স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন

  • পূর্ববর্তী পেজে দেওয়া তথ্য গুলি নতুন পেজে একবার মিলিয়ে নিতে হবে। যদি কোনো ভুল না থাকে তাহলে ‘Submit Application’ –অপশনে ক্লিক করুন। আপনার দেওয়া তথ্য গুলিতে যদি কোনো ভুল থাকে সেক্ষেত্রে ‘Edit Loan Application’ -অপশনে ক্লিক করে ভুল তথ্যটি ঠিক করে নিন। একবার সাবমিট হয়ে যাওয়ার পর তথ্যগুলি পরিবর্তন করা যাবে না।

 

  • এবার ‘Dashboard’ -এ দেখাবে ‘Application Submitted to HOI’, সুতরাং আপনার আবেদন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানের কাছে চলে গেছে। এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তরফ থেকে এই আবেদন উচ্চ শিক্ষা দপ্তরকে পাঠানো হলে ‘Dashboard’ -এ দেখাবে ‘Application forwarded by to HOI to HED’. উপরে উল্লিখিত মোট ১০ ধাপ অনুসরণ করে খুব সহজেই স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবেন। সরাসরি আবেদন করার জন্য নীচের বাটনে ক্লিক করুন

 

Apply Now

 

বিস্তারিত জানতে দেখে নিন অফিশিয়াল নোটিশ – Click Here 

 

1 thought on “স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড ওয়েস্ট বেঙ্গল এপলাই অনলাইন”

Leave a Comment