স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 নতুন নিয়মের আবেদন পদ্ধতি | swami vivekananda scholarship 2022 last date

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 নতুন নিয়মের আবেদন পদ্ধতি | স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এ কত টাকা পাওয়া যায় | স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 date | স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ | vivekananda scholarship 2022 last date |পশ্চিমবঙ্গ স্কলারশিপ 2022 | উচ্চ মাধ্যমিক স্কলারশিপ | মাধ্যমিক পাস স্কলারশিপ

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে তাদের ছাত্রদের জন্য পরিচালিত হয়েছে যারা তাদের ফি বহন করতে পারছেন না। স্নাতকোত্তর এবং নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীতে অধ্যয়নরত অন্যান্য সকল শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করা হয়। এই বৃত্তিগুলি শিক্ষার্থীদের একটি ভাল শিক্ষা পেতে সাহায্য করবে এবং তারা তাদের শিক্ষার দ্বারা তাদের উপর চাপানো আর্থিক বোঝা কাটিয়ে উঠবে।

সংখ্যালঘু বিষয়ক ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অধীনে পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘুদের উন্নয়ন ও ফিনান্স কর্পোরেশন, পশ্চিমবঙ্গ সরকার স্নাতক স্তরের সংখ্যালঘু শিক্ষার্থীদের জন্য Swami Vivekananda Merit Cum Means Scholarship প্রকল্পের জন্য আবেদনগুলি আমন্ত্রণ জানিয়েছে। এই বৃত্তিটির লক্ষ্য মেধাবী তবুও অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া সংখ্যালঘু শিক্ষার্থীদের উচ্চতর পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের আর্থিক সহায়তা প্রদান। নির্বাচিত প্রার্থীরা বার্ষিক Rs. 12,000 থেকে বার্ষিক Rs.60,000 পর্যন্ত বৃত্তি পাবেন।

Contents hide
6 স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ সম্বন্ধে বিভিন্ন প্রশ্ন

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ নতুন নিয়মের আবেদন পদ্ধতি:-

বর্তমানে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করার জন্য বর্তমানে ছাত্র-ছাত্রীদের ন্যূনতম 60 শতাংশ নম্বর পেতে হবে। তবে সংখ্যালঘুদের জন্য ও হিন্দু জাতি দের জন্য দুটি ভিন্ন ভিন্ন ওয়েবসাইটে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর আবেদন করা যাবে। এখন নিম্নে ওয়েবসাইট দুটি উল্লেখ করা হলো:-

সংখ্যালঘু (মুসলিম, খৃষ্টান ,বৌদ্ধ প্রভৃতি ধর্মের ছাত্রছাত্রীরা):- https://wbmdfcscholarship.org/
হিন্দু ধর্মালম্বী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য:- https://svmcm.wbhed.gov.in/

আমরা সকলেই জেনে এসেছি পূর্ববর্তী নিয়ম অনুযায়ী স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে এপ্লিকেশন করার জন্য 75% নাম্বার আবশ্যিক ছিল, কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থে সেটি কমিয়ে 60% করা হয়েছে।
এই স্কলারশিপটি শুরু হয় দশম শ্রেণী অর্থাৎ মাধ্যমিক পাস করার পর থেকে, এরপরে একাদশ শ্রেণিতে 60 শতাংশ নম্বর পেলে ও তা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর আবেদনের যোগ্য নয়, কারণ হলো একাদশ শ্রেণির সম্পূর্ণ পরীক্ষা নিজ নিজ স্কুলে সম্পন্ন হয়, তাই স্কলার্শিপ কতৃপক্ষ একাদশ শ্রেণি কে এই স্কলার্শিপ থেকে বঞ্চিত রেখেছে। পরবর্তীতে দ্বাদশ শ্রেণী পাস করার পর থেকে শুরু করে, যতদিন অব্দি পড়াশোনা চলবে ততদিন শিক্ষার্থীরা এই স্কলারশিপের সুবিধা পেতে পারে।
বিশেষ দ্রষ্টব্য:- স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ রেনুয়াল বা ক্রমাগত পেতে হলে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে প্রত্যেক বার্ষিক পরীক্ষায় 60 শতাংশ নম্বর পেতে হবে। তবে মাস্টার্স ডিগ্রিতে 53 শতাংশ নম্বর গ্রহণযোগ্য।

কোন শিক্ষার্থী যদি কোন কারনে এক বছর ড্রপ বা পড়াশোনা ক্রমাগত চালিয়ে রাখতে না পারে তাহলে পরবর্তীতে, এই স্কলারশিপ আবেদন করার সময় উপযুক্ত কারণ দেখিয়ে এই স্কলারশিপটি রেনুয়াল বা ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশন করতে পারে। যদি কোনো ছাত্রছাত্রী এক বছরেরও অধিক পড়াশোনার সঙ্গে যুক্ত না থাকে তাহলে উক্ত ছাত্র-ছাত্রী স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর এপ্লিকেশন করতে পারবে না। অবশ্য তারা নতুন কোন কোর্সে ভর্তি হলে সেক্ষেত্রে তারা ফ্রেশ অ্যাপ্লিকেশন করে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে পারে।

কোর্সের নাম স্কলারশিপের পরিমাণ
একাদশ শ্রেণি 12000 টাকা।
স্নাতক (1,2,3 বর্ষ) B.A প্রতিবছর 12000 টাকা।
বি.এড (B.ed) প্রতিবছর 24000 টাকা।
মাস্টার্স ডিগ্রী(M.A) প্রতিবছর 24000 টাকা।
SVMCM স্কলারশিপের হেল্পলাইন 18001028014

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম স্কলারশিপ জন্য  যোগ্যতা ;

  • পশ্চিমবঙ্গের একজন স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • পশ্চিমবঙ্গে অবস্থিত একটি প্রতিষ্ঠানে স্নাতকোত্তর স্তরে স্নাতকোত্তর পর্যন্ত পড়াশোনা করা।
  • আড়াই লক্ষেরও কম বার্ষিক পারিবারিক আয়
  • আপনি যদি মাধ্যমিক দিয়ে থাকেন তবে আপনাকে 60% নাম্বার পেয়ে 11 এ ভর্তি হতে হবে, এবং এখানে আবেদন করতে হবে।
  • আপনি যদি উচ্চমাধ্যমিক দিয়ে থাকেন তবে আপনাকে 60% নাম্বার পেয়ে ইউজির যে কোনো বিষয়ে অথবা মেডিক্যাল, ইঞ্জিনিয়ার, ডিপ্লোমা বা আর যেসমস্ত কোর্স রয়েছে, সেখানে ভর্তি হতে হবে, এবং স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে হবে।
  • আপনি যদি ইউজি দিয়ে থাকেন এবং 53% নাম্বার পান এবং পিজিতে ভর্তি হন তবে আপনি এখানে আবেদন করতে পারবেন।
  • যারা কন্যাশ্রীর K1 ও K2 পেয়েছে, তারা যদি পিজিতে 45%মার্কস পেয়ে ভর্তি হয় তবে তারাও 24 হাজার বা 30 হাজার টাকা পাবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 2022 কত টাকা পাওয়া যায়;

বর্তমান কোর্স স্কলারশিপ
উচ্চমাধ্যমিক (XI+XII) প্রতি মাসে 1000 টাকা
Undergraduate (Engineering / Medical/ Honours /GNM / Para-medical) প্রতি মাসে 1000 থেকে 5000 টাকা
ডিপ্লোমা (পলিটেকনিক) প্রতি মাসে 1500 টাকা
Postgraduation প্রতি মাসে 2000 থেকে 5000 টাকা

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপ(SVMCM)ডকুমেন্ট

  • সর্বশেষ যোগ্যতা পরীক্ষার মার্কশিট (উভয় পক্ষ)।
  • সর্বশেষ যোগ্যতা পরীক্ষার Admit Card
  • Income Certificate in original
  • ব্যাংক পাস বইয়ের প্রথম পৃষ্ঠা।
  • Domicile Certificate(রেশন কার্ড / ভোটার আইডি / আধার কার্ড ইত্যাদি)।
  • মাধ্যমিক পরীক্ষার Admit Card।
  • অনলাইনে ভর্তির প্রাপ্তি

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ জন্য অনলাইনে আবেদন করার পদ্ধতি ;

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের অনলাইন আবেদন পদ্ধতি নিচে আলোচনা করা হলো।

  • প্রথমে আপনাকে অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  •  তারপরে ‘ Registration‘ এ ক্লিক করুন।
  • এরপর ‘Apply for Fresh Application’ বোতামে ক্লিক করুন।
  • আপনাকে নিজের Name, Email, Phone Number, Date of Birth, ইত্যাদি সরবরাহ করে এই বৃত্তি অ্যাপ্লিকেশন পোর্টালে নিজেকে  Registrationনিবন্ধন করতে হবে।এই সময় আবেদনকারীকে একটি পাসওয়ার্ড তৈরি করতে হবে, যেটা পরবর্তীকালে লগইন করার সময় কাজে লাগবে।
  • সফল registration পরে, আবেদনকারী একটি ‘Application ID পাবেন। যার সাহায্যে তিনি অনলাইনে লগইন করতে পারবেন। এই অ্যাপ্লিকেশন আইডি অবশ্যই পরবর্তী ব্যবহারের জন্য লিখতে হবে।
  • এরপর আবেদনকারীকে Application ID এবং Password দিয়ে লগ ইন করতে হবে এবং আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ড্যাশবোর্ডে ‘Edit Profile / Application’  বিকল্পে ক্লিক করতে হবে।
  • এখন অনলাইনে আবেদন ফরম সঠিকভাবে সব তথ্য দিয়ে পূরণ করতে হবে এবং আবেদনকারীর স্ক্যান করা ছবি ও স্বাক্ষর ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। তারপর‘Save & Next’বাটনে ক্লিক করে পরবর্তী অংশে যান।
  • এরপর আবেদনকারীকে বেশ কিছু ডকুমেন্ট স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে।
  • এখন আবেদনকারীর দেওয়া সমস্ত তথ্য অনলাইনে সেভ হয়ে গেছে। এই সমস্ত তথ্য আর একবার ভালো করে দেখে নিয়ে ‘Finalize Application‘ অপশনে ক্লিক করতে হবে। এই অপশনে ক্লিক করার পর আবেদনকারী আর কোন তথ্য edit করতে পারবে না।

Note এই বৃত্তির জন্য সম্পূর্ণ আবেদন প্রক্রিয়া অনলাইন। তাই অনলাইনে আবেদনের পর আপনাকে কোথাও কোন ডকুমেন্ট জমা দিতে হবে না। পশ্চিমবঙ্গ স্বামী বিবেকানন্দ মেধা-কাম-মাধ্যম বৃত্তির জন্য অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া শেষ। এখন আবেদনকারী ড্যাশবোর্ডে তার application status দেখতে পারেন।

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের Renewal আবেদন পদ্ধতি;

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের Renewal আবেদন এর জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের Application ID ও Password (গত বছর অনলাইন আবেদনের সময় প্রাপ্ত) দিয়ে www.svmcm.wbhed.gov.in ওয়েবসাইটে লগইন করতে হবে। এরপর উপরে উল্লেখিত ধাপগুলি অনুযায়ী Renewal আবেদন করতে হবে।

Noteউচ্চ মাধ্যমিক কোর্সে (একাদশ শ্রেণি), স্নাতক প্রথম বছর, অথবা পলিটেকনিকের প্রথম বর্ষে 60% নম্বর পাওয়া শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তি নবায়ন করার যোগ্য। স্নাতকোত্তর (পিজি) কোর্সের জন্য, প্রথম বছরে ন্যূনতম 50% নম্বর প্রয়োজন, তারপর পরের বছর পুনর্নবীকরণ করা যেতে পারে।

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের অনলাইন renewal জন্য আবেদন করার সময়, আবেদনকারীকে শেষ স্কুল/কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার মার্কশিট স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে। যদি পরীক্ষা সেমিস্টার পদ্ধতিতে হয়, তাহলে দুই সেমিস্টারের মার্কশিট একসাথে স্ক্যান করে প্রয়োগ করতে হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের তারিখ ;

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের অনলাইন আবেদনের জন্য বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তারিখ এখানে দেওয়া হলো।

2018 সালের জন্য নতুন ও Renewal আবেদন পরে জানানো হবে।
অনলাইন আবেদনর শেষ তারিখ 2022-2023 পরে জানানো হবে।
Renewal  শেষ তারিখ 2022-2023 পরে জানানো হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তিতে নির্বাচন প্রক্রিয়া

বৃত্তির অধীনে নির্বাচন পদ্ধতি নিচে উল্লেখ করা হল:-

  • প্রথমত, অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনগুলি বাছাই করা হয়।
  • এগুলি প্রাথমিকভাবে প্রাপ্ত নম্বর এবং শিক্ষার্থীর আয়ের মানদণ্ডের উপর ভিত্তি করে একটি ক্রমবর্ধমান ক্রমে সাজানো হয়।
  • সেই অনুযায়ী মেধা তালিকা তৈরি করা হবে।
  • প্রার্থীদের জমা দেওয়া সমস্ত নথির প্রাপ্যতার ভিত্তিতে মেধা তালিকা তৈরি করা হবে
  • অবশেষে, বৃত্তি তাদের নিজ নিজ অ্যাকাউন্টে বিতরণ করা হবে।

SVMCM স্কলারশিপের হেল্পলাইন

কোন সমস্যা হলে, অনলাইনে বৃত্তির জন্য আবেদন করার সময় বা অন্য কোন গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের জন্য, আপনি SVMCM  স্কলারশিপ হেল্পলাইনে যোগাযোগ করতে পারেন। যোগাযোগ করার জন্য আপনি helpdesk.svmcm-wb@gov.in এ একটি ইমেইল পাঠাতে পারেন অথবা কল করতে পারেন 18001028014 (টোল ফ্রি)।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ সম্বন্ধে বিভিন্ন প্রশ্ন

যারা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এ আবেদন করেছেন এবং যারা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করবেন ভাবছেন তাদের মনে অনেক প্রশ্ন আছে। তাই সেসব প্রশ্ন গুলি প্রশ্ন গুলি নিজে আলোচনা করা হলো।

প্রশ্ন – আমি কি Oasis scholarship এবং স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপ একসাথে আবেদন করতে পারি?

উত্তর – না। একসাথে দুটি স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবে না।

প্রশ্ন-আমার ব্যাংক আইএফএসসি কোড পরিবর্তন করা হয়েছে তাই আমি কিভাবে আমার স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তি পুনর্নবীকরণ করতে পারি ?(My bank IFSC code was changed so how can I Renewal my Swami Vivekananda scholarship)

উত্তর – হ্যাঁ আপনি আবেদন করতে পারেন।

প্রশ্ন – স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ লাস্ট ডেট (swami vivekananda scholarship 2021 last date) ?

উত্তর-

2018 সালের জন্য নতুন ও Renewal আবেদন 7th অক্টোবর 2021 থেকে
অনলাইন আবেদনর শেষ তারিখ 15th ফেব্রুয়ারী 2022
Renewal  শেষ তারিখ মার্চ 2022

প্রশ্ন – আমার স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপের স্ট্যাটাস বহুদিন ধরে Application Forwarded by HOI দেখাচ্ছে, আমার স্কলারশিপ কি অ্যাপ্রুভ হবে না?

উত্তর – এই সমস্যাটার মধ্যে সবচেয়ে বেশি রয়েছেন যারা রিনুয়াল অ্যাপ্লিকেশনে আবেদন করছেন। রিনুয়ালদের কলেজ থেকে অ্যাপ্রুভ করে পাঠিয়ে দেবার মাস খানেক কেটে যাবার পরও তাদের স্ট্যাটাস চেঞ্জ হয়নি। এরকম সমস্যায় যারা আছেন তাদের জন্য রয়েছে সুখবর ইতিমধ্যেই রিনুয়ালদের অ্যাপ্লিকেশনও অ্যাপ্রুভ করা শুরু হয়েছে। বহু ছাত্র-ছাত্রীর স্ট্যাটাস ইতিমধ্যেই চেঞ্জ হয়েছে আপনারা এই মুহুর্তে নিজের স্ট্যাটাস চেক করুন। আর যদি আপনার স্ট্যাটাস চেঞ্জ না হয়ে থাকে তবে আরেকটু অপেক্ষা করুন।

প্রশ্ন – আমার স্ট্যাটাস Application Approved (Scholarship Amount not Disbursed yet) দেখাচ্ছে বহুদিন ধরে। আমার স্ট্যাটাস কবে চেঞ্জ হবে?

উত্তর – আপনার স্ট্যাটাস যদি এরকম দেখায় তার মানে আপনাকে টাকা দেবার জন্য সিলেক্ট করা হয়েছে। আপনার জেলায় টাকার লট এলেই আপনার স্ট্যাটাস চেঞ্জ হবে এই তারপরেই আপনি টাকা পাবেন।

প্রশ্ন – আমার অ্যাপ্লিকেশন রিজেক্ট হয়ে গিয়েছে, আমি কি করবো?

উত্তর – আপনার এপ্লিকেশন রিজেক্ট হয়ে দিয়েছে এর অর্থ আপনার কোনো ডকুমেন্টসে সমস্যা রয়েছে। ঘাবড়াবার কিছু নেই আপনি বিকাশ ভবনের নাম্বারে (1800-102-8014) ফোন করুন। সেখান থেকে আপনার অ্যাপ্লিকেশন নাম্বার চাইবে তারপর তারা আপনার ঠিক কোথায় সমস্যা সেটা বলে দেবে। এরপর আপনি সেই সমস্যাটার সমাধান করুন। মেলের মাধ্যমে (helpdesk.svmcm-wb@gov.in) অ্যাপ্লিকেশন পাঠিয়েও করতে পারেন অথবা বিকাশ ভবনে সরাসরি উপস্থিত হয়েও করতে পারেন।

প্রশ্ন – নেক্সট টাকার লট কবে আসবে?

উত্তর – বর্তমানে একটি টাকার লট এসেছে এবং প্রচুর ছেলে মেয়েকে টাকা দেওয়া হচ্ছে। আপনার যদি অ্যাপ্লিকেশন স্ট্যাটাস {Application Sanctioned (Scholarship Amount Disbursed)} এমন দেখায় তবে আপনি এই লটেই টাকা পেয়ে যাবেন।

প্রশ্ন – আমার একটি ডকুমেন্টস ভুল সাবমিট করা হয়েছে, আমার কি করনীয়।

উত্তর – আপনি সবার প্রথমে আপনার স্ট্যাটাস চেক করুন। আপনার স্ট্যাটাস যদি Application Submitted দেখায় তবে আপনি আপনার স্কুল বা কলেজে যোগাযোগ করুন সেখান থেকে আপনার ফর্মটি আনলক করে দিবে এবং তারপর আপনি সেই ভুলটি ঠিক করতে পারবেন৷ আর স্ট্যাটাস যদি সেটি না দেখিয়ে অন্য কিছু দেখায় তবে অপেক্ষা করুন ফর্ম রিজেক্ট হবার। যদি রিজেক্ট হয় তবে ৩ নাম্বার উত্তর অনুযায়ী কাজ করতে হবে। আর যদি রিজেক্ট না হয় তাহলে শুভেচ্ছা।

প্রশ্ন – বি এডের জন্য স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তির পরিমাণ কত( What is the amount of Swami Vivekananda scholarship for B Ed )? 

উত্তর – 24000

প্রশ্ন – বি এড ছাত্রদের জন্য স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তি প্রযোজ্য ( Is the Swami Vivekananda scholarship applicable for B Ed students )?

উত্তর – হ্যাঁ এছাড়াও D.ed, M.ed

প্রশ্ন – স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তি এবং এক্যশ্রী বৃত্তি কি একই ( Is the Swami Vivekananda scholarship and Aikyashree scholarship the same )?

উত্তর – না, প্রকৃতপক্ষে যে সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের অন্তত 60% একাডেমিক স্কোর আছে, তারা Svmcm (স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ) স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারে এবং 60% এর নিচের ছাত্ররা Aikyashree স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারে।

প্রশ্ন – ড্রপাররা কি স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তি পেতে পারে ( Can droppers get Swami Vivekananda scholarship)?

উত্তর – হ্যাঁ, অবশ্য এক বছরের বেশি পড়াশোনার মধ্যে না থাকলে এই স্কলারশিপটি করা যাবে না। একমাত্র এক বছরের বিরোধী থাকলে এবং কি কারণে বিরতি ছিল তার যথাযথ কারণ উল্লেখ করে, আপনি স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ আবেদন করতে পারেন।

প্রশ্ন – ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীরা কি স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারে ( Can diploma student apply for Swami Vivekananda scholarship )?

উত্তর – হ্যাঁ, ডিপ্লোমা কোর্সে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ করা যায় কিন্তু আপনি যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোর্সটি করছেন তাদেরকে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর আওতায় থাকতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লিস্টে আপনি যে ইনস্টিটিউটে বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোর্সটি করছেন, সেই প্রতিষ্ঠানের নাম না থাকলে, আপনি এই স্কলারশিপটি  করতে পারবেন না।

প্রশ্ন – সিবিএসই বোর্ডের শিক্ষার্থীরা কি স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারে ( Can CBSE board students apply for Swami Vivekananda scholarship )?

উত্তর – হ্যাঁ, পশ্চিমবঙ্গে অবস্থিত যে কোন সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এ আবেদন করতে পারে।

প্রশ্ন – আমি কি k3 এবং স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তি উভয়ের জন্য আবেদন করতে পারি ( Can I apply for both k3 and Swami Vivekananda scholarships )?

উত্তর – না, নিয়ম অনুযায়ী কোন ছাত্রছাত্রী একসঙ্গে কে থ্রি এবং স্বামী বিবেকানন্দের স্কলারশিপ, একসাথে করতে পারেনা। ছাত্র-ছাত্রীদের যে কোন একটিতে আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হয়। কোন কারণে কোন ছাত্র-ছাত্রী দুটিতে আবেদন করলে, পরবর্তীতে কর্তৃপক্ষ ধরে ফেললে দুটোই বাতিল করে দেওয়া হয়।

প্রশ্ন – স্বামী বিবেকানন্দ বৃত্তির শেষ তারিখ কত?

উত্তর – পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন কলেজের ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার এক মাসের মধ্যেই স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপটি চালু হয়ে যায়। এখন বর্তমানে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় খুব তাড়াতাড়ি স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপও আগস্ট মাসের মধ্যে চালু হয়ে যাবে।

প্রশ্ন – একটি নির্দিষ্ট সময় অব্দি স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ আবেদন চলতে থাকলে এবং পরবর্তীতে পোর্টাল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর আবেদন করা যায় কি?

উত্তর – হ্যাঁ সময়সীমার মধ্যে কোন ছাত্র-ছাত্রী স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন করতে ব্যর্থ হলে বা কোন কারণে আবেদন করতে না পারলে তাদের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বার আবেদন করার জন্য নির্দিষ্ট তারিখে সময় দিয়ে তাদেরকে আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হয়।

প্রশ্ন – আমি প্রথমে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এডমিশন হয়ে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপটিতে আবেদন করি, কিন্তু আবেদন করার দুমাস পর আমি আমার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন করে‌ নিই। আমি কি দ্বিতীয় বছরে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর রেনুয়াল করতে পারব?

উত্তর – না, কোন ছাত্র-ছাত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন করলে, তাদেরকে তাদের আবেদন পত্রটি তুলে নিয়ে নতুনভাবে বর্তমান প্রতিষ্ঠানের আওতায় আবেদনটি করতে হবে। তা না করলে সেই সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী দ্বিতীয় বছরে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ এর রেনুয়াল করা থেকে বঞ্চিত থাকবে।

বিস্তারিত পড়ুন

WhatsApp Group Click Here
Telegram Click Here
Facebook Page Click Here

My name is Wasif Hossain. I have been teaching children since graduation as well as writing on various topics with friends. Currently, I am a government teacher. I have also passed many government job exams.

Comments are closed.